• ডোমেইন ইনভেস্টমেন্ট শুরু করতে হলে, আপনার প্রথম দরকার এই ব্যাপারে সঠিক জ্ঞান অর্জন। আপনি পড়াশোনা না করে, লাখ টাকা নিয়ে শুরু করেও বেশিদূর আগাতে পারবেন না। পড়াশোনা শুরু করতে, পিন পোস্ট ফলো করুন

ডিজিটাল ব্র্যান্ডিং বিষয় নিয়ে কিছু কথা

#1
ডিজিটাল ব্র্যান্ডিং হলো ডিজিটাল মাধ্যমে আপনার প্রোডাক্টের, সার্ভিস বা ডোমেইন এর একটা ব্র্যান্ডিং তৈরি করা ।
প্রথমতম ইউজার ও প্রোফাইলের নাম তৈরি করা । কেননা আপনি আপনার সাইট তৈরি করলেন যখন আপনি মার্কেটিং করতে যাবে্ন তখন গিয়ে দেখলেন আপনার কোন ইউজারন নেম নাই । অন্য কেউ আপনার ডোমেইন এর ইউজারনেম নিয়ে রেখেছে । সেখান থেকে অন্য কিছুর প্রচার হচ্ছে তাহলে ডিজিটাল ব্র্যান্ডিং করতে হয়তো অসুবিধায় পড়তে পারেন ।
একটা উদাহরন স্বরুপ বলি আমার ডোমেইনের নাম example.COM । আমি ফেইসবুকে এই নামে পেজ খুলেছি । কিন্তু ইউজার নেম নিতে ভুলে গেছি । সেক্ষেত্রে কিন্তু অন্য কেউ ইউজার নিয়েছে । যে আমার ইউজার নেম নিয়েছে সে আমার হুবহু নামও দিয়েছে । এখন সেখানে অন্য কিছু শেয়ার করছে । অনেকই ফেইসবুক এ সার্চ করে ব্র্যান্ড নেম লিখে সেখান ঐ পেজটি আসলো। এখানে কিন্তু ভুল পেজকে আসল ভেবে নিতে পারে । এখানে আমি ব্যবসার ক্ষতিতে পড়ে গেলাম। সঠিক ব্র্যান্ডিং এর অভাবে কিন্তু আমার অডিয়েন্স অন্য পেজে চলে গেলো ।
এই রকম সমস্যা থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য ডোমেইন কেনার সাথে সাথে ডিজিটাল মিডিয়া গুলোতে পেজ কিংবা একাউন্ট খুলে নিবেন । যদি এইটা কোন ব্র্যান্ডেবল ডোমেইন হয় তাহলে তো কোন কথাই নাই ।
এতে করে আপনি ডোমেইন সেলের সাথে সাথে টোটাল ব্র্যান্ডিং সেল করতে পারবেন । এটার জন্য আপনি চাইলে আলাদা চার্জ ধরে নিতে পারেন ।
 

Latest posts

Top